... ০১৫ সালের ৩ অক্টোবর, মার্কিন বিমানবাহিনীর AC-130U উড়োযান কর্তৃক উত্তর আফগানিস...
 

কুন্দুজ হাসপাতাল বিমান হামলা
Part of কুন্দুজ যুদ্ধ (২০১৫) এবং আফগানিস্তান যুদ্ধ (২০০১–২০২১)
কুন্দুজ শহরে, কুন্দুজ ট্রমা সেন্টারের অবস্থান
ধরণবিমান হামলা
অবস্থান
লক্ষ্যকুন্দুজ ট্রমা সেন্টার, মেডেসিন্স সান্স ফ্রন্টিয়ারেস হাসপাতাল
তারিখ অক্টোবর ২০১৫ (2015-10-03)
নিষ্পন্নকারীমার্কিন যুক্তরাষ্ট্র AC-130U, সাংকিতিক নাম "হ্যামার", ৪র্থ স্পেশাল অপারেশন স্কুয়াড্রন, আমেরিকান বিমান বাহিনী[1]
হতাহত৪২ killed
৩৩ জন নিখোজ, ৩০ এর উপর আহত injured

২০১৫ সালের ৩ অক্টোবর, মার্কিন বিমানবাহিনীর AC-130U উড়োযান কর্তৃক উত্তর আফগানিস্তানের কুন্দুজ প্রদেশের কুন্দুজ শহরে মেডেসিন্স সান্স ফ্রন্টিয়ারেস (এমএসএফ, বা ডক্টরস উইদাউট বর্ডার) দ্বারা পরিচালিত কুন্দুজ ট্রমা সেন্টারে হামলা চালানো হয়। রিপোর্ট অনুযায়ী, কমপক্ষে ৪২ জন নিহত এবং ৩০ জনের বেশি আহত হয়েছিল এই হামলায়। [2] [3] [4] [5] [6] [7]

মেডিসিন্স সান্স ফ্রন্টিয়েরেস ঘটনাটির তীব্র নিন্দা জানিয়ে একে আন্তর্জাতিক মানবিক আইনের ইচ্ছাকৃত লঙ্ঘন এবং যুদ্ধাপরাধ বলে অভিহিত করেছেন। তারা আরও বলে যে, সমস্ত যুদ্ধ পক্ষকে হাসপাতাল এবং এর কার্যক্রম সম্পর্কে আগে থেকেই অবহিত করা হয়েছিল। [8] [9]

মার্কিন সামরিক বাহিনী প্রাথমিকভাবে বলে যে, বিমান হামলাটি ভূমিতে মার্কিন বাহিনীকে রক্ষা করার জন্য করা হয়েছিল। পরে আফগানিস্তানে মার্কিন কমান্ডার জেনারেল জন এফ ক্যাম্পবেল বলেন, বিমান হামলার করার জন্য স্বয়ং আফগান বাহিনীই অনুরোধ করেছিল যারা তালেবানদের গুলির মধ্যেপড়েছিল। ক্যাম্পবেল বলেন, এই হামলাটি "একটি ভুল" এবং "আমরা কখনই ইচ্ছাকৃতভাবে একটি সুরক্ষিত চিকিৎসা কেন্দ্রকে টার্গেট করিনি। "[10] [11] ক্যাম্পবেল বলেন, বিমান হামলাটি মার্কিন সিদ্ধান্তের মধ্যে চেইন অব কমান্ডের মাধ্যমেই সংঘঠিত হয়েছিল।

২০১৫ সালের ৭ অক্টোবর, প্রেসিডেন্ট বারাক ওবামা ক্ষমা চান এবং ঘোষণা করেন যে, যুক্তরাষ্ট্র বিমান হামলায় নিহতদের পরিবারকে ৬,০০০ ডলালের সমবেদনার ক্ষতিপূরণ দিবেন। [12] [13] [14]

আক্রমণ

পটভূমি

২০১৫ সালের ২৮ সেপ্টেম্বর তালেবান যোদ্ধারা কুন্দুজ শহর দখল করে এবং সরকারী বাহিনীকে তাড়িয়ে দেয়। পুনরায় শক্তি অর্জন করে আসার পর, মার্কিন বিমান সমর্থিত আফগান সেনাবাহিনী শহরের নিয়ন্ত্রণ ফিরে পেতে আক্রমণাত্মক অভিযান শুরু করে। কয়েক দিনের লড়াইয়ের পর আফগান বাহিনী শহরটি পুনরুদ্ধার করার দাবি করে। অবশ্য, লড়াই যখন অব্যাহত ছিল, সেই সময় ৩ অক্টোবর, মার্কিন নেতৃত্বাধীন বিমান কুন্দুজ ট্রমা হাসপাতালে বিমান হামলা করে। যার ফলে হাসপাতালটি প্রচণ্ড ক্ষতিগ্রস্ত হয়। ডাক্তার, স্বাস্থ্য কর্মী এবং রোগীরা সেখানে মৃত্যুবরণ করে।

ঘটনাটি

মেডিসিন্স সান্স ফ্রন্টিয়ার্স এর রিপোর্ট অনুযায়ী, ৩ অক্টোবর রাতে স্থানীয় সময় ০২:০৮ এবং ০৩:১৫ (UTC +০৪: ৩০) এর মধ্যে, সংস্থার কুন্দুজ হাসপাতালে কয়েকদফা বিমান বোমা হামলা হয়। [10] [15] সংগঠনটি বলে যে, হামলার সময় হাসপাতালটি "বেশ কয়েকবার আঘাতপ্রাপ্ত হয়" এবং ভবনটি "আংশিকভাবে ধ্বংস হয়ে যায়"। [16] এতে আরও বলা হয়, হাসপাতালটিকে "বারবার এবং সুনির্দিষ্টভাবে হামলা করা হচ্ছিল " এবং এমএসএফ কর্মীরা মার্কিন এবং আফগান কর্মকর্তাদের সাথে যোগাযোগ করার পরের ৩০ মিনিট পর্যন্ত আক্রমণ অব্যাহত ছিল। [17] [18] অ্যাসোসিয়েটেড প্রেস জানিয়েছে যে, হামলার সময় মার্কিন বিশেষ বাহিনী হাসপাতাল থেকে আধা মাইল দূরে ছিল, যেখানে তারা কুন্দুজ প্রদেশের গভর্নরকে রক্ষা করেছিল। একইভাবে, আফগান বাহিনী ছিল আধা মাইল দূরে। [19] [20]

আরো দেখুন

  1. "By evening, a hospital. By morning, a war zone"The Washington Post। ১০ অক্টোবর ২০১৫। সংগ্রহের তারিখ ১৮ অক্টোবর ২০১৫ 
  2. "MSF Kunduz hospital bombing death toll rises"The Sydney Morning Herald। ২০১৫-১০-২৬। সংগ্রহের তারিখ ৩০ এপ্রিল ২০১৬ 
  3. "Aghanistan: Death toll from the MSF hospital attack in Kunduz still rising"Médecins Sans Frontières (MSF) International। সংগ্রহের তারিখ ৩০ এপ্রিল ২০১৬ 
  4. Wang, Amy X. (৪ অক্টোবর ২০১৫)। "The Aftermath of the Airstrike on Doctors Without Borders"The Atlantic। সংগ্রহের তারিখ ৪ অক্টোবর ২০১৫ 
  5. Popalzai, Masoud; Brumfield, Ben (৩ অক্টোবর ২০১৫)। "Air attacks kill at least 19 at Afghanistan hospital; U.S. investigating"। CNN। সংগ্রহের তারিখ ৪ অক্টোবর ২০১৫ 
  6. Rubin, Alissa J.; Southall, Ashley (৪ অক্টোবর ২০১৫)। "Doctors Without Borders Says It Is Leaving Kunduz After Strike on Hospital"The New York Times। সংগ্রহের তারিখ ৫ অক্টোবর ২০১৫ 
  7. "Doctors Without Borders airstrike: MSF says 33 people still missing"The Guardian। ৮ অক্টোবর ২০১৫। সংগ্রহের তারিখ ৯ অক্টোবর ২০১৫ 
  8. "Afghanistan: MSF Demands Explanations After Deadly Airstrikes Hit Hospital in Kunduz"। Doctors Without Borders। ৩ অক্টোবর ২০১৫। ৬ অক্টোবর ২০১৫ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ৪ অক্টোবর ২০১৫ 
  9. Doctors Without Borders Enraged Over 'Deliberate' Kunduz Hospital Bombing.
  10. 1 2 "U.S. military struggles to explain how it wound up bombing Doctors Without Borders hospital"Washington Post। ৫ অক্টোবর ২০১৫। সংগ্রহের তারিখ ৬ অক্টোবর ২০১৫ 
  11. Rosenberg, Matthew (৫ অক্টোবর ২০১৫)। "U.S. General Says Afghans Requested Airstrike That Hit Kunduz Hospital"The New York Times। সংগ্রহের তারিখ ৬ অক্টোবর ২০১৫ 
  12. EDT, Danielle Moylan On 04/09/16 at 3:29 PM (২০১৬-০৪-০৯)। "The practice of doling out condolence payments to Afghan victims of U.S. strikes is drawing scrutiny"Newsweek (ইংরেজি ভাষায়)। সংগ্রহের তারিখ ২০২০-০৪-২১ 
  13. Reuters Editorial (১০ অক্টোবর ২০১৫)। "Pentagon says U.S. to make payments to families of Kunduz air strike victims"Reuters UK। সংগ্রহের তারিখ ৩০ এপ্রিল ২০১৬ 
  14. Shear, Michael D.; Sengupta, Somini (৮ অক্টোবর ২০১৫)। "Obama Issues Rare Apology Over Bombing of Doctors Without Borders Hospital in Afghanistan"The New York Times। সংগ্রহের তারিখ ৮ অক্টোবর ২০১৫ 
  15. Mullen, Jethro; Fantz, Ashley (৫ অক্টোবর ২০১৫)। "Afghan hospital bombing: Civilians 'accidentally struck'"CNN। সংগ্রহের তারিখ ৬ অক্টোবর ২০১৫ 
  16. Rubin, Alissa J. (৩ অক্টোবর ২০১৫)। "Airstrike Hits Doctors Without Borders Hospital in Afghanistan"The New York Times। সংগ্রহের তারিখ ৫ অক্টোবর ২০১৫ 
  17. Rahim, Fazul; Cumming, Jason (৩ অক্টোবর ২০১৫)। "19 Dead After Charity Hospital Hit by Apparent U.S. Airstrike"NBC News। সংগ্রহের তারিখ ৬ অক্টোবর ২০১৫ 
  18. "Afghan conflict: MSF 'disgust' at government hospital claims"BBC News। ৫ অক্টোবর ২০১৫। সংগ্রহের তারিখ ৬ অক্টোবর ২০১৫ 
  19. Ken Dilanian, Associated Press (১২ নভেম্বর ২০১৫)। "U.S. troops could not see Afghan hospital during attack"PBS NewsHour। সংগ্রহের তারিখ ৩০ এপ্রিল ২০১৬ 
  20. Ken Dilanian, Associated Press (২৬ অক্টোবর ২০১৫)। "Troops who sought strike thought Taliban had hospital"PBS NewsHour। সংগ্রহের তারিখ ৩০ এপ্রিল ২০১৬ 




  Go to top  

This article is issued from web site Wikipedia. The original article may be a bit shortened or modified. Some links may have been modified. The text is licensed under "Creative Commons - Attribution - Sharealike" [1] and some of the text can also be licensed under the terms of the "GNU Free Documentation License" [2]. Additional terms may apply for the media files. By using this site, you agree to our Legal pages [3] [4] [5] [6] [7]. Web links: [1] [2]